অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ জালালের পাশে ভাঙ্গুড়ার মেয়র রাসেল

0
19

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি পাবনার ভাঙ্গুড়ায় অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পৌরসভার সারুটিয়া মহল্লার জালাল উদ্দিনকে আর্থিক সহায়তা দিয়েছে পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল। সোমবার রাতে পৌর মেয়র নিজে জালাল উদ্দিনের বাড়িতে গিয়ে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ৩ হাজার টাকা এবং পৌরসভার তহবিল থেকে ১০ হাজার টাকা প্রদান করেন। এসময় ভাঙ্গুড়া থানার (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) ওসি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন ও পরিদর্শক নাজমুল হক (তদন্ত) সহ চাটমোহর ফায়ার সার্ভিস অফিসের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে গত সাড়ে চার বছরে পৌর শহরের মধ্যে বিভিন্ন মানবিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে মেয়র রাসেল মানবিক মেয়র হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন। উল্লেখ্য, গত শুক্রবার রাতে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে অটোভ্যান চালক জালাল উদ্দিনের দুটি বসতঘরসহ ভ্যানগাড়ি পুড়ে যায়। ঘটনার দিন রাতেই ভাঙ্গুড়া পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ি পরিদর্শন করেন। এদিকে উপার্জনের জন্য একমাত্র ভ্যানগাড়িটি পুড়ে যাওয়ায় আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় জালাল উদ্দিন পরিবার নিয়ে দুর্বিপাকে পড়ে। পরে পৌর মেয়র গোলাম হোসেন রাসেল অটোভ্যান চালক জালাল উদ্দিনের পরিবারের মানবতার জীবনযাপন দেখে পৌরসভার তহবিল ও ব্যক্তিগত তহবিল থেকে নগদ ১৩ হাজার টাকা প্রদান করেন। টাকা পেয়ে সোমবার সকালে ক্ষতিগ্রস্ত অটোভ্যান গাড়িটি মেরামতের জন্য ওয়ার্কশপে পাঠিয়েছেন জালাল উদ্দিন। এছাড়া জালাল উদ্দিন আত্মীয়-স্বজনের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা নিয়ে বসতঘরও মেরামতের কাজ শুরু করেছেন। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ জালাল উদ্দিন বলেন, ‘বসতবাড়ী পুড়ে যাওয়ার পরে অনেকেই দেখতে এসেছিল। কিন্তু কেউই সহায়তার হাত বাড়ায়নি। অবশেষে ভাঙ্গুড়া পৌর মেয়র রাসেল ভাই আমার ভ্যান গাড়ি ও বাড়ি মেরামতের জন্য ১৩ হাজার টাকা দিয়েছে। ভাঙ্গুড়া পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল বলেন, ছোট্ট পৌরসভার আর্থিক সীমাবদ্ধতার মধ্যে দিয়েই পৌরসভার মানুষের দুঃখ দূর্দশা লাঘবের জন্য চেষ্টা করি। কারণ পৌরবাসী ভালো থাকলেই আমরা ভাল থাকি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here