আটঘরিয়ায় ৭ম শ্রেণির ছাত্রী ৬ মাসের অন্ত:সত্ত্বা ” প্রেমিক জেল হাজতে

0
67

শফিউল আযম, বেড়া (পাবনা) সংবাদদাতা ঃ
বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে ৭ম শ্রেণির স্কুল ছাত্রীর সাথে শারিরীক সম্পর্ক গড়ে তোলায় ৬ মাসের অন্তসত্ত্বা ওই ছাত্রীকে বিয়ে না করায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের মামলায় এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার একদন্ত ইউনিয়নের ষাটগাছা গ্রামে ।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, আটঘরিয়া উপজেলার ষাটগাছা গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে মিরাজুল ইসলাম (২৪) বাড়ির পাশের ৭ম শ্রেণির স্কুল পড়ুয়া মেয়ের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। এরপর বিয়ের বিয়ের প্রলোভন দিয়ে একাধিক বার শারিরীক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এরপর মেয়েটি বিয়ের জন্য মিরাজুলকে চাপ দিলে সে বিয়ে করতে অস্বীকার করে। এরপর গত ৪ নবেম্বর ওই স্কুল ছাত্রীকে ডাক্তারি পরিক্ষা করা হলে সে ৬ মাসের অন্তসত্ত্বা বলে প্রকাশ পায়। এরপর ৬ নবেম্বর ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মিরাজুল ইসলামের নামে আটঘরিয়া থানায় ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধনী) (০৩) এর ৯ (১) ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।
আটঘরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম জানান, থানায় মামলা দায়ের হওয়ার পরেই তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে মিরাজুলকে আটক করা হয়েছে। তাকে আদালতের মাধ্যমে পাবনা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here