কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কার্য ভাংচুরের ঘটনায় বেড়া উপজেলা প্রশাসনের প্রতিবাদ সভা

0
59

শফিউল আযম, বেড়া (পাবনা) সংবাদদাতা ঃ
কুষ্টিয়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাঙ্গার ঘটনায় বেড়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে “জাতির পিতার সন্মান রাখবো মোরা অম্লান” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সরকারি বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দদের এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
গত শুক্রবার রাতে কুষ্টিয়া পৌরসভার পাঁচ রাস্তার মোড়ে নির্মাণাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের ডান হাত, পুরো মুখ ও বাম হাতের অংশ বিশেষ ভেঙ্গে ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় বেড়া উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে এই প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আসিফ আনাম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে অনষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ মশকর আলী, বেড়া মডেল থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম আজাদ, উপজেলা স¦াস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সরদার মিলন মাহমুদ, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রুবিনা বেগম, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার খবির উদ্দিন প্রমুখ। এসময় উপজেলা পর্যায়ের সকল দপ্তরের সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। সভা পরিচালনা করেন উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা অলোক কুমার পাল।
কুষ্টিয়ার ভাস্কর্য ভাঙ্গার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তারা বলেন, একটি চক্র দেশের সামাজিক-সম্প্রীতিকে বিনষ্ট করতে ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ এবং বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তীতে নতুন করে ষড়যন্ত্রে মেতেছে উঠেছে। তারা ধর্মের নামে ভাস্কর্য বিরোধীতে অবস্থান নিয়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে ভাস্কর্য ভাঙ্গার অপচেষ্টা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। যা এটা তাদের রাজনৈতিক উদ্দেশ্যের বহিরপ্রকাশ। তারা দেশকে অস্থিতিশীল করতে উগ্র ও উস্কানিমূলক বক্তব্যে দিচ্ছে। যা দেশের শুভ লক্ষণ নয়।
সভাপতির বক্তব্যে বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসিফ আনাম সিদ্দিকী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু আমাদের একটি স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছেন। তিনি আমাদের গর্ব। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কার্য ভাংচুর করে স্বাধীনতার চেতনায় আঘাত কা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর সনমানে যারা হানি ঘটাবে আমরা তাদের রুখে দেব। এ বিষয়ে দেশ ও জাতি ঐক্যবদ্ধ রয়েছে। কুষ্টিয়ার ঘটনার তিনি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দোষিদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here