তাড়াশে ছাত্রদল নেতার ধর্ষনের শিকার এক নারী ৭ মাসের অর্ন্তসত্তা

0
10

লিপন সরকার চলনবিল প্রতিনিধি :
সিরাজগঞ্জের তাড়াশে ইউনিয়ন ছাত্রদলের নেতা রিপন আহমেদ আকাশের ধর্ষনের শিকার এক নারী (২২) ৭ মাসের গর্ভবতী হয়েছে। উপজেলার নওগাঁ ইউনিয়নের চৌপাকিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়টি এলাকায় চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয়েছে। ধর্ষনের ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে ধর্ষকের পরিবার নানাভাবে চাপ সৃষ্টি করছে বলে বৃহস্পতিবার রাতে জানান ওই নারী বাবা হোসেন আলী।
ধর্ষনের শিকার ওই নারীর পিতা ও স্থানীয়রা জানান, গত ২৫ দিন পুর্বে উপজেলার নওগাঁ ইউনিয়নের চৌপাকিয়া গ্রামের হোসেন আলী মেয়েকে পাশের উল্লাপাড়া উপজেলার ঘোনাগাইনজালী গ্রামের বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের এক সপ্তাহ পর ওই নববধু অসুস্থ হয়ে পড়লে শশুরবাড়ির লোকজন সিরাজগঞ্জ রোডে একটি বেসরকারী ক্লিনিকে নিয়ে যায়। পরে চিকিৎসক আল্ট্রাসনোগ্রাফী করে জানান ওই গৃহবধু ৭ মাসের গর্ভবতী হওয়ার কারনে অসুস্থ হয়েছে। তাৎক্ষনিক স্বামী ও শশুরবাড়ির লোকজন তাকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দিয়ে ডিভোর্স দেন।
এ সময় পরিবারের লোকজনের কাছে নববধু শিকার করে সে চৌপাকিয়া গ্রামের আলেপ উদ্দিনের ছেলে ইউনিয়ন ছাত্রদলের নেতা ও সাংগঠনিক সম্পাদক রিপন আহমেদ আকাশ (২৬) তাকে একাধিক বার ধর্ষণ করেছে।
নববধু (২২) জানান, আমাকে বিভিন্ন সময় রিপন আহমেদ আকাশ বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ও ভয়ভীতি দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষন করে। পরে অন্তসর্ত্তা হয়েছি বলে তাকে (রিপনকে) জানালে সে আমার গর্ভের সন্তান ও আমাকে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেয়। তাই ভয়ে কাউকে কিছুই জানাইনি।

এ প্রসঙ্গে ধর্ষক রিপনের পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা তারা এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হয়নি।
এ বিষয়ে নওগাঁ ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মজনু সরকার জানান, ঘটনাটি অত্যান্ত লজ্জাজনক। এ ব্যাপারে কোন ছাড় দেয়া হবে না। এর উপযুক্ত বিচার করা হবে।
তাড়াশ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাহবুবুল আলম বলেন, ঘটনাটি শুনেছি । এ বিষয়ে কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্তপুর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে। #

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here