পাবনার বেড়ায় আয়নাল হত্যা মামলা মিমাংসায় বাদীর বিরুদ্ধে গুমের মামলাঃ প্রাণনাশের হুমকী

0
64

শফিউল আযম, বেড়া (পাবনা) সংবাদদাতা ঃ
পাবনার বেড়ায় আয়নাল শেখ (২৬) হত্যা মামলার পলাতক আসামীরা মামলা তুলে নিতে প্রাণ নাশের হুমকী দিচ্ছে বলে বাদী মোঃ বেল্লাল শেখ অভিযোগ করেছেন। শুধু তাই নয়, হত্যার আসামীরা মামলার মিমাংসায় বাধ্য করতে বাদী, সাক্ষী ও তাদের আত্মীয়-স্বজনের বিরুদ্ধে পাবনা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে গুম এবং লুটপাটের পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করেছে। বিজ্ঞ ম্যাজিষ্ট্রেট বেড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জকে মামলা দু’টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। পুলিশ হত্যা মামলার প্রধান আসামীসহ চার জনকে গ্রেফতার করেছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে।
বেড়া মডেল থানা সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ১৫ এপ্রিল উপজেলার কৈটোলা ইউনিয়নের মাছখালী গ্রামে যমুনার শাখা কাকেশ্বরী নদীতে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের মৃত তমছের আলীর ছেলে মোঃ সালাউদ্দিন গংদের সাথে মোঃ বিল্লাল শেখের বাকবিতন্ডা হয়। এতে আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে মাছ ধরায় বাধা দেয়। পরে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বিষয়টি মিমাংসা করে দেন। এর জের ধরে পরে দিন ১৬ এপ্রিল সকাল ৭ টার দিকে বিল্লাল শেখের ভাই আয়নাল শেখ কাকেশ্বরী নদীতে মাছ ধরতে যাবার পথে খাইরুল ইসলাম (আতাই) মেম্বরের বাড়ী সংলগ্ন গেলে পূর্ব থেকে ওৎপেতে থাকা সালাউদ্দিন ও তার সহযোগীরা আয়নাল শেখকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে। এসময় তার চিৎকারে বেল্লাল শেখ, আফসার শেখ, মোঃ মোফাজ্জল, রানা দ্রুত ঘটনাস্থলে গেলে সালাউদ্দিন ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী তাদেরও কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্ের নিয়ে গেলে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে আয়নাল শেখের অবস্থার দ্রুত অবনতি হলে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রিফার্ড করা হয়। রাজশাহী নেয়ার পথে নাটোর বাইপাস সড়কের কাছে সে মারা যায়।
এ ঘটনায় মোঃ বেল্লাল শেখ বাদী হয়ে মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ নুরজামাল, মোঃ আশিক, মোঃ রেজাউল প্রামানিক, মোঃ নূরনবী, মোঃ গোলজার প্রামানিক, মোঃ আলী প্রমানিক, মোঃ আবু বকর প্রামানিক, মোঃ ওসমান প্রামানিক, মোঃ হাসান প্রামানিক, মোহাম্মদ প্রামানিক, মোঃ মামুন প্রামানিক, মোঃ কালু, মোঃ সিরাজুল ইসলামসহ অজ্ঞাত আরো ১৪/১৫ জনের বিরুদ্ধে বেড়া মডেল থানায় ১৬/০৪/২০২০ইং তারিখে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-০৪। ওই দিনই পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামী সালাউদ্দিন, মোঃ আশিক, মোঃ নূরুজ্জামান ইসলাম দুখুকে গ্রেফতার করে। গত ৬ জুন হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত সন্দেহে পুলিশ মোঃ শাহ আলমকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করে। অন্যান্য আসামীরা পলাতক রয়েছে।
এদিকে পলাতক আসামীরা বাদী ও সাক্ষীদের বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি ও প্রাণ নাশের হুমকী দেয়ায় তারা পরিবার-পরিজন নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন। হত্যা মামলার আসামী হাসান প্রামানিক আত্মগোপনে রয়েছে। অন্যদিকে হত্যা মামলা মিমাংসায় চাপ সৃষ্টি করতে আনজেল প্রামানিক তার ছেলে হাসান প্রামানিককে বাদী পক্ষ হত্যা করে লাশ গুম করেছে বলে আদালতে মামলা দায়ের করেছে। এই অভিযোগ মিথ্যা ভিত্তিহীন বলে বাদী অভিযোগ করেছেন।
এদিকে হত্যা মামলার আসামীদের আত্মীয় মোঃ আলমগীর প্রামানিক বাদী হয়ে গত ১৬/০৪/২০২০ইং তারিখে জেলা পাবনার সিনিঃ জুডিঃ ম্যাজিষ্ট্রেট কগঃ (৩) আদালতে বাদী পক্ষের ২০ জনের বিরুদ্ধে বাড়ীঘর ভাংচুর, লুটপাট ও চুরির অভিযোগে নং পি-/১৩/২০২০ইং (বেড়া) মামলা দায়ের করে। এছাড়া হত্যা মামলার ১০ নম্বর আসামী মোঃ হাসান প্রামানিকের পিতা- আনজেল প্রামানিক ফরিদপুর জেলার চরভদ্রাসন থানায় তার ছেলে হাসান নিখোঁজ হয়েছে এই মর্মে একটি জিডি করেন। জিডি নং-১০৭২ তারিখ-৩১/০৫/২০২০ইং। পরবর্তীতে মোঃ আনজেল প্রামানিক বাদী হয়ে গত ২১ জুলাই জেলা পাবনার বিজ্ঞ সিনিঃ জুডিঃ ম্যাজিষ্ট্রেট কগঃ (৩) ও ভার্চুয়াল-৩ আদালতে তার ছেলে হাসানকে হত্যা করে লাশ গুমের অভিযোগে ১৫ জনকে আসামী করে নং পি-/১৪/২০২০ইং (বেড়া) মামলা দায়ের করে। আদালতের বিজ্ঞ বিচারক পৃথক দু’টি মামলা বেড়া থানার অফিসার ইনচার্জকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।
আয়নাল শেখ হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বেড়া মডেল থানার এস আই আব্দুর রহিম জানান, মামলাটি তদন্তাধীন রয়েছে। চার জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পলাতক অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
বেড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহিদ মাহমুদ খান বলেন, হত্যা মামলাটিকে কাউন্টার এবং বাদীকে চাপে রাখার জন্য আদালতে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে আয়নাল শেখ নিহত হওয়ার পর আসামীদের বাড়ীতে কিছু ভাংচুরে ঘটনা ঘটেছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here