পাবনার সাঁথিয়ায় পশুকে যৌন হয়রানী সিসি টিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে ধর্ষককে আটক

0
32

শফিউল আযম, পাবনা থেকে সংবাদদাতা ঃ
পাবনার সাঁথিয়ায় লম্পট হাফিজুর (৩৫) কর্তৃক পশুকে যৌন হয়রানী অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই গো-খামারের মালিক আলহাজ্ব রেজাউল করিম মাস্টার বাদী হয়ে সাঁথিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে পশু ধর্ষককে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেন থানা পুলিশ।
অভিযোগে জানা গেছে, বুধবার রাত ১০টা ২০ মিনিটের দিকে উপজেলার হাপানিয়া রামচন্দ্রপুর গ্রামের রেজাউল করিমের গরুর খামারে প্রবেশ করে। সকালে খামারের মালিক গোয়াল ঘরে এসে দেখে তার একটা গাভী মরে পড়ে আছে। এত তার সন্দেহ জাগে কেউ এসেছিল ঘরে। পরে তাৎক্ষনিক গোয়াল ঘরের সিসিটিভির ফুটেজ দেখেন। সেখানে দেখতে পান একজন লোক রাত ১০টা ২০ মিনিটের দিকে গোয়াল ঘরে প্রবেশ করে। কিছু সময় এদিক ওদিক তাকিয়ে লম্পট একটা লাল গাভীকে ২ বার করে এসে ধর্ষণ করে চলে যায়।
পরে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে আসামীকে সনাক্ত করে জানা গেছে, হাপানিয়া রামচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কদ্দুসের ছেলে লম্পট হাফিজুর এসেছিল। পরে তাকে গ্রামবাসীর সহায়তায় ধরে এনে গোয়াল ঘরে বেধে রেখে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আসামী হাফিজকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ওই সময় পুলিশের মাধ্যমে জনসম্মুখে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে ধর্ষক হাফিজুর। খামারী রেজাউল আরও অভিযোগ করে বলেন, তার প্রায় আড়াই লক্ষ টাকার একটা গাভী বিষক্রিয়া অথবা যে কোন উপায়ে হত্যা করেছে লম্পট হাফিজুর।
সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে। আসামীকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here