ফলোআপ তাড়াশ গুল্টা শহীদ এম, মুনসুর আলী ডিগ্রি কলেজের গেট ধসে চার জন নিহত হওয়ার ঘটনায় মামলা দায়ের : তদন্ত কমিটি গঠন

0
1

লুৎফর রহমান,তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা:
সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার গুল্টা শহীদ এম,মনসুর আলী ডিগ্রি কলেজের গেট ধসে ঘটনাস্থলেই এক শিশু সহ চার জন নিহত হওয়ার ঘটনায় কলেজের অধ্যক্ষ কে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ ঘটনায় সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসন তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। তাড়াশ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইফ্ফাত জাহান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তাড়াশ উপজেলা প্রশাসন, থানা ও নিহতদের পারিবারিক সূত্র জানায়, ঘটনার পরপরই পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুননেসা মুজিব ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়। বুধবার ময়না তদন্ত শেষে নিহতদের লাশ দাফন করা হয়।

এ সময় নিহতদের গ্রামের বাড়িতে স্বজনদের আহাজারিতে বাতাস ভারি হয়ে ওঠে। এলাকাজুড়ে নেমে আসে শোকের ছায়া।

তাড়াশ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুবুল আলম জানান, মঙ্গলবার রাতেই ওই ঘটনায় নিহত তাড়াশ উপজেলার গাবরগাড়ি গ্রামের তোজাম্মেল হকের জামাতা আব্দুস সাত্তার বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এ মামলায় নির্মাণ কাজে ত্রুটি ও দায়িত্বে অবহেলার কারণে গুল্টা শহীদ এম,মনসুর আলী ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো: আসাদুজ্জামান আসাদ কে অভিযুক্ত করা হয়।

এ দিকে কলেজের গেটধসে চারজন নিহত হওয়ার ঘটনায় সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) কে আহবায়ক এবং তাড়াশ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও তাড়াশ উপজেলা প্রকৌশলী কে সদস্য করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।
এ তদন্ত কমিটিকে আগামী পাঁচ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য,গত ১৭ মার্চ মঙ্গলবার বিকেল আনুমানিক চারটার দিকে উপজেলার গুল্টা শহীদ এম, মনসুর আলী ডিগ্রি কলেজের গেট ধসে পরে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হয়। আহত হন আরো ১০ জন। ওইদিন ছিলো গুল্টা হাটবার। হাটে আসা লোকজন রোদ থেকে বাঁচতে কলেজ গেটের ছায়ায় আশ্রয় নিলে হঠাৎ গেটধসে পড়ে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় লোকজন অভিযোগ করে বলেন, কলেজের অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান আসাদ একক সিদ্ধান্তে সৌন্দর্য বর্ধন করার জন্য তিন মাস আগে পাকা গেটটি নির্মাণ করেন। নি¤œমানের কাজ করার ফলে এ দূর্ঘটনা ঘটে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here