বেড়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে অভিযান ৯টি ড্রেজারের খননযন্ত্র ধংস

0
88

শফিউল আযম, বেড়া (পাবনা) সংবাদদাতা ঃ
পাবনার বেড়ায় যমুনা নদীর প্রায় ১৫ কিলোমিটার এলাকাব্যাপী বালুদস্যুদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করায় নয় জনের কাছ থেকে পাঁচ লাখ ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় এবং ৩ জনকে তিন মাস করে কারাদ- দেয়া হয়েছে। আটক ৯টি ড্রেজারের খননযন্ত্র ধংস করে ফেলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ( ৯ জুলাই) সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত একটানা অভিযান পরিচালনা করেন বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আসিফ আনাম সিদ্দিকী।
অভিযান কালে যমুনা নদীতে বালু উত্তোলনের সময় নৌযানসহ নয়টি ড্রেজারসহ ১২ জনকে আটক করা হয়। আদালত আটক ব্যক্তিদের নয় জনের কাছ থেকে পাঁচ লাখ ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। বাকি তিনজনের প্রত্যেককে তিনমাস করে কারাদ- দেয়া হয়। এ ছাড়া আটক ড্রেজারগুলোর খননযন্ত্র আদালতের নির্দেশে ধ্বংস করা হয়।
ভ্রাম্যমান আদালত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এ পর্যন্ত বালুদস্যুদের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযান পরিচালিত হয়েছে। তবে বৃহস্পতিবারের (৯ জুলাই) অভিযানটি ছিল সবচেয়ে ব্যাপক। ভ্রাম্যমাণ আদালতের কর্মকর্তারা বেশ কয়েকটি স্পিডবোট নিয়ে উপজেলার নগরবাড়ী থেকে শুরু করে বেড়া পৌর এলাকার মোহনগঞ্জ পর্যন্ত প্রায় ১৫ কিলোমিটার এলাকাব্যাপী এই অভিযান পরিচালনা করেন।
এলাকাবাসীরাা জানিয়েছেন, বেশ কয়েকমাস ধরে যমুনা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। অবৈধ বালু উত্তোলনের ফলে উপজেলার কয়েকটি গ্রামে নদীভাঙনের পাশাপাশি তীর রক্ষা বাঁধে ধস দেখা দিয়েছে। সম্প্রতি যমুনা তীরবর্তী কয়েকটি এলাকা বর্ষার পানিতে ডুবে যাওয়ায় ফসলি জমি থেকে বালু ও মাটি উত্তোলন শুরু করেছিল বালুদস্যুরা।
বৃহস্পতিবার সকালে বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আসিফ আনাম সিদ্দিকী নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত নগরবাড়ী থেকে মোহনগঞ্জ পর্যন্ত প্রায় ১৫ কিলোমিটার এলাকাব্যাপী যমুনা নদীতে অভিযান চালিয়ে বড় ধরনের নয়টি ড্রেজার আটক করে মোহনগঞ্জে নিয়ে আসা হয়। এ সময় বালু উত্তোলনের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ১২ জনকে আটক করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত আটক ছোবান ফকির, মোঃ মাসুদ, হারুন সরকার, নাজমুল হক, ছাত্তার, জাহিদ মোল্লা, নূও সরকার, আহসান আলী ও সালেক হোসেনকে মোট পাঁচ লাখ ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। তারা জরিমানা পরিশোধ করে তাঁরা ছাড়া পান। অন্যদিকে আদালত মোঃ নূরনবী (২২), নাসিরউদ্দিন (৩০) ও শাহেদ আলী (৩১) প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করেন। অনাদায়ে তাঁদের প্রত্যেককে তিন মাসের কারাদ- দেন।
ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসিফ আনাম সিদ্দিকী বলেন, অবৈধ বালু উত্তোলনের সাথে জড়িতদের আমরা জেল, জরিমানা করেছি। এছাড়া তাঁদের ড্রেজারের মূলযন্ত্রাংশ ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। আমরা এ ধরনের কঠোর অভিযান বারবার পরিচালনা করব, যাতে অবৈধ বালু উত্তোলন পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here