ভাঙ্গুড়ায় বিয়ের দাবিতে কলেজছাত্রীর ছেলের বাড়িতে অনশন

0
17

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় বিয়ের দাবিতে গত দুইদিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন এক কলেজছাত্রী (২২)। ওই যুবক তাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন তরুণী।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ওই যুবকের নাম আব্দুল আলিম মামুন। তিনি ভাঙ্গুড়া পৌর সদরের ২নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ মেন্দা আদর্শ গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে। তিনি দেশের একটি নিরাপত্তা বাহিনীতে কর্মরত। আব্দুল আলিম ছুটিতে বাড়ি এসে প্রেমিকার দাবির মুখে পালিয়ে গেছেন।

অনশনরত তরুণী এডওয়ার্ড কলেজে ইতিহাস বিভাগে অনার্স শেষবর্ষের ছাত্রী। তার বাড়ি চাটমোহর উপজেলায়। আব্দুল আলিম মামুন সম্পর্কে তার খালাতো ভাই।

ভুক্তভোগী তরুণী ও পুলিশ সূত্র জানায়, ২০১৫ সাল থেকে আব্দুল আলিমের সঙ্গে ওই তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক চলছে। এ সম্পর্ক আরও ঘনিষ্ঠ রূপ নেয়। সম্প্রতি কলেজছাত্রী বিয়ের কথা বললে আব্দুল আলিম এড়িয়ে যেতে থাকেন। গত ৩০ জুন ছুটি নিয়ে তিনি বাড়ি আসেন। খবর পেয়ে ওই তরুণী শনিবার (৩ জুলাই) সকালে প্রেমিক মামুনের বাড়িতে আসেন এবং বিয়ের জন্য চাপ দেন। পরে মামুন বাড়ি থেকে সটকে পড়েন।

কলেজছাত্রীর বড়বোন জানান, দীর্ঘদিন প্রেমের অভিনয় করে মামুন এখন বিয়ে করবেন না বলে পালিয়েছেন। তার বোন যদি আত্মহত্যা করেন তাহলে মামুনই দায়ী থাকবেন।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে ওই কলেজছাত্রী বলেন, ‘আমাদের দীর্ঘ ৬ বছরের সম্পর্ক। মামুন এখন অস্বীকার করছে। বিয়ে না হলে আমার আত্মহত্যা করা ছাড়া আর কোনো উপায় থাকবে না।’

কুমড়াডাঙ্গা মহল্লার বাসিন্দা ও উভয় পক্ষের মধ্যস্থতাকারী শফিকুল ইসলাম বলেন, বিয়ের জন্য পারিবারিকভাবে চেষ্টা চলছে। মীংমাসা হবে বলে আশা করা যায়।

ভাঙ্গুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফয়সাল বিন আহসান রোববার (৪ জুলাই) সন্ধ্যায় জাগো নিউজকে বলেন, তারা এ রকম একটি সংবাদ পেয়েছেন। অভিযুক্ত ব্যক্তি একটি নিরাপত্তা বাহিনীকে কর্মরত। তাদের নিজস্ব কিছু বিধিবিধান রয়েছে। আর পুলিশের পক্ষে বিয়ে দিয়ে দেয়াও সম্ভব নয়। তাই ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যদের অভিযুক্ত মামুনের কর্মস্থলে অভিযোগ করার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে। স্থানীয়ভাবে সুরাহা না হলে ওই কলেজছাত্রী ইচ্ছে করলে আইনি পদক্ষেপ নিতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here