ফুলবাড়ীতে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক বাঘা ইউনুসের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

0
10

ফুলবাড়ী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে ১৯৭১ সালে ফুলবাড়ী থানা স্বাধীনতা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এবং ওই সালের ১২ মার্চ বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলনকারী দ্বিতীয় ব্যক্তি মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মরহুম ইউনুস আলী বাঘা ইউনুস এর ৩৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকেলে বাঘা ইউনুস স্মৃতি পরিষদের আয়োজনে নাওডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ কার্যালয় চত্বরে এ স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মরহুম বাঘা ইউনুসের সহধর্মিণী তহরিনা ইউনুসের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা মৎসজীবি লীগের আহবায়ক আতাউর রহমান রতনের সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা শুধাংশু কাগজী।এ সময় ছাত্রলীগ নেতা নাজমুস সাকিব পিয়াস, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ শাহাজাহান আলী, নাওডাঙ্গা স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল হানিফ সরকার, ফুলবাড়ী ডিগ্রি কলেজের ইংরেজি বিষয়ের প্রভাষক খাইরুল বাশার, নাওডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম বন্ধন, নাওডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নাওডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসেন আলী, বাসদের কুড়িগ্রাম জেলা আহ্বায়ক কমরেড ফুলবর রহমান, বাংলাদেশ জাসদের কুড়িগ্রাম জেলা সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার ইসমাইল হোসেন বাদল, ফুলবাড়ী উপজেলা জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ মকবুল হোসেন, লালমনিরহাট জেলার সাবেক এমপি মরহুম আবুল হোসেনের ছেলে এ্যাডভোকেট গোলাম হায়দার বক্তব্য রাখেন।
বক্তারা মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে মুক্তিযোদ্ধাদের সংগঠিত করার জন্য মরহুম বাঘা ইউনুসের কৃতিত্ব, অবদান বিশদভাবে আলোচনা করেন।মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক হওয়ার পরও তার নাম মুক্তিযোদ্ধার তালিকাভুক্ত না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং মরহুম বাঘা ইউনুসের নাম মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
এর আগে বাদ যোহর বালারহাট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে মরহুমের আত্নার মাগফেরাত কামনা করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here