শফিউল আযম, বেড়া (পাবনা) সংবাদদাতা ঃ

0
29

গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল ২৩ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ১০টায় ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদানের শুভ উদ্বোধন করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের প্রতি মানুষ খাদ্য পাবে, আশ্রয় পাবে, উন্নত জীবনের অধিকারী হবে এটাই ছিল বঙ্গবন্ধুর লালিত স্বপন। আর সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে আমরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। আগামী দিনে বাংলাদেশে একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না বলে তিনি জানান।
এ উপলক্ষে বেড়া উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সবুর আলী। প্রধান অতিথি ছিলেন, বেড়া উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল হক বাবু, বিশেষ অতিথি ছিলেন যথাক্রমে সহকারী কমিশনার ভূমি মাহবুব হাসান, অবসর প্রাপ্ত অধ্যক্ষ জাফরউল্লা দুলাল, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ইসহাক আলী। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, চাকলা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ফারুক হোসেন, সুফলভোগী রেখা খান প্রমূখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল হক বাবু বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল সোনার বাংলা গড়ার। তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে উঠেছে। খাদ্যে সয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে। মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে। ভূমিহীনদের জমি ও দূর্যোগ সহনীয় পাকা ঘর তৈরি করে দেয়া হচ্ছে। এভাবেই গড়ে উঠছে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা।
বেড়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ আরিফুল ইসলাম বলেন, আশ্রায়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় বেড়া উপজেলায় ভূমিহীনদের জন্য ২০টি দূর্যোগ সহনীয় পাকা ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যায় হয়েছে এক লাখ ৭১ হাজার টাকা। এরমধ্যে রুপপুর ইউনিয়নে ১২টি, জাতশাকিনী ইউনিয়নে ৬টি ও চাকলা ইউনিয়নে ২টি ঘর বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।
উপজেলার রুপপুর ইউনিয়নের কাঠালডাঙ্গী গ্রামের মোছাঃ খোদেজা খাতুন বলেন, মাথা গোঁজার ঠাঁই ছিলো অন্যের জমিতে। সংসার চালানোর তেমন কোন সামর্থ্য নেই। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাকা ঘর ও জমি পেয়ে আমি অনেক খুশি। খোদেজা খাতুনের মতো উপজেলার আরো ১৯টি অসহায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ উপহার পেয়ে আনন্দিত। মাথা গোঁজার স্থায়ী আবাসন পেয়ে দারুন খুশি ভূমিহীন হতদরিদ্র্য সুবিধাভোগী পরিবারগুলে।
সভাপতির বক্তব্যে বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সবুর আলী বনেন, আমি এই কর্মস্থলে নতুন যোগদান করেছি। সবকিছু এখনো গুছিয়ে উঠতে পারিনি। উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি মাহবুব হাসান অক্লান্ত পরিশ্রম করে খাস জমি চিহিৃত ও অবৈধ দখল মুক্ত এবং দলিল সম্পাদন করে ভূমিহীনদের জন্য পাকা ঘর তৈরি ব্যবস্থা করে দিয়েছে। তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য আমন্ত্রিত অতিথিদের ধন্যবাদ জানান।
পরে জমির দলিল, ডিসিআর, খাজনা-খারিজের কাগজপত্র ও আধুনিক সুযোগ সুবিধা সম্পন্ন পাকা ঘরের চাবি ভূমিহীনদের হাতে তুলে দেয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here