সলঙ্গায় পানি চলাচলের পথ বন্ধ করলেন প্রভাবশালী, হুমকিতে ৪শ বিঘা জমি

0
7

উল্লাপাড়া  প্রতিনিধি,

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার সলঙ্গা থানার আগরপুর গ্রামে প্রতিহিংসার বশে মাটি দিয়ে ব্রিজের নিচের ফাঁকা অংশ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এতে ৪শ বিঘা ফসলি জমিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টির আশঙ্কা করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ব্রিজের নিচ দিয়ে পানি নিষ্কাশনের পথ বন্ধ হয়ে গেলে মাঠে জলাবদ্ধতার মাধ্যমে ফসলি জমি অনাবাদি জমিতে পরিণত হবে। হুমকির মুখে পড়বে ফসলি জমি ও এলাকার শত শত কৃষক। জলাবদ্ধতা নিরসনে ভুমি মালিকরা স্থানীয় প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টদের দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি জানিয়েছেন।

স্থানীয় বাসিন্দা আকতার মল্লিক, আব্দুল হামিদ, আলতাব হোসেন ও আবু বকর অভিযোগ করে জানান, উপজেলার আগরপুর গ্রামের সড়কে স্থাপিত ব্রিজের মুখ দিয়ে বর্ষা ও বৃষ্টির পানি নিষ্কাশন হতো। শনিবার সকালে আগরপুর গ্রামের আবু বক্কার মাস্টার নামের এক প্রভাবশালী ব্যক্তি তার দলবল নিয়ে ব্রিজের মুখটা বন্ধ করে দেন। এতে গ্রামবাসী বাধা দিলে ব্রিজের নিচের ওই পথ দিয়ে পানি বের হতে দেবেন না বলে তিনি সাফ জানিয়ে দেন। পানি না গড়লে ফসলের মাঠে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হলে অনাবাদি হয়ে পড়বে জমিগুলো। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়বেন জমির মালিকরা।

এ ব্যাপারে আবু বক্কার মাস্টারকে মুঠোফোনে জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান, সলঙ্গা থানার আমশড়া নুনিয়ারপাড় নামক স্থানে আগরপুর গ্রামের প্রবেশপথের পশ্চিম পাশের রাস্তায় গ্রামের কিছু লোক কালভার্টের মুখ বন্ধ করায় সেখানে বর্ষাকালে জমে থাকা বৃষ্টির পানি বের হতে পারে না। সে মাঠে তাদের অনেক জমি রয়েছে। জমিগুলো অনাবাদি হয়ে পড়েছে। এতে তাদের ফসলি জমির ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। তাই তাদের ফসলি জমির মাঠের ব্রিজের মুখ বন্ধ করেছি। ওরা খুলে দিলে আমরাও ব্রিজের মুখ খুলে দেবো।

এ বিষয়ে মুঠোফোনে জানতে চাইলে উল্লাপাড়ার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ নাহিদ হাসান খান জানান, ব্যক্তিগত কাজে ব্রিজের মুখ বন্ধ করে পানি চলাচলে বাধা দিতে পারে না কেউ। বিষয়টি সম্পর্কে অবগত আছি। এ ব্যাপারে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here